চারঘাটে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ১৯ জন আটক

চারঘাটে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে ১৯ জন আটক

রাজশাহীচারঘাটে পুলিশের বিশেষ পৃথক পৃথক অভিযানে মাদক সেবনকারী ও ব্যবসায়ীসহ ১৯জনকে আটক করেছে মডেল থানা পুলিশ।

শুক্রবার দিবাগত রাতে মডেল থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে চারঘাট পৌর এলাকা, শলুয়া, হলিদাগাছি, জাগিরপাড়া থেকে মাদক সেবনকারী ও ব্যবসায়ীদের আটক করে।

আটককৃত মাদক সেবনকারীরা হলেন রাজশাহীর চন্দ্রিমা এলাকার আজিজ এর ছেলে শুকুর আলী (৫০), মৃত আবুল কাশেম ছেলে মনির হোসেন (৪৩), খোরসেদ আলীর ছেলে মিজানুর রহমান(৩৩),মৃত নুর ইসলাম ছেলে শাজাহান(২৮) পুঠিয়া উপজেলার আবুল কালামের ছেলে কাউসার(২৭),আয়েন উদ্দিনের ছেলে বেলাল(৩০), ইয়াকুব আলীর ছেলে বারেকুল(২৬), মৃত আলমগীর ছেলে সবুজ আলী(২৮)।

পড়ুনঃ-  দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে চারঘাটে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল

এছাড়া পবা থানার রবিউল, মতিহার থানার আলমগীর, বাঘা থানর সাগর আলী, চারঘাট থানার হোসেন আলী,হাবিল, শাহাদৎ,সুমন, হাসাদুল ইসলাম ও রাজশাহী জেলা শাহ মুখদম থানা নাজিমুদ্দিন ছেলে রাজু (৪৫) দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিজ হেফাজতে রাখার অপরাধে এবং নাটোর জেলা জাহেদুল ইসলাম (৩০),পাবনা জেলা মৃত মোতালেব ছেলে বাবু(৫০)।

পড়ুনঃ-  রাজশাহীতে আদালতে নেওয়ার পথে পুলিশের গাড়ি থেকে পালালো আসামী

হলিদাগাছি জাগিরপাড়া স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন অনেক গডফাদাররা ধরাছোয়ার বাহির থেকে বা জেল থেকে বের হয়ে আবারোও মাদক ব্যবসায়ী চালিয়ে যাচ্ছেন এবং ইউপি সদস্য সাহাবুর ব্যবসা ছেড়ে দিলেও আড়ালে মাদক ব্যবসা করছে বলে দাবী করেন এলাকাবাসী।

এব্যাপারে চারঘাট মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শলুয়া চামটাসহ রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকসেবন ও মাদক ব্যবসায়ী ১৯জনকে আটক করে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের মাধ্যমে শনিবার সকালে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। মাদকমুক্ত করতে এই অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পড়ুনঃ-  জয়েন করুন সেন্টার ফর প্রফেশনাল ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে